BDExpress

মালিকের জন্য চার ঘণ্টা অপেক্ষার পর ফিরে এল মোবাইল কোর্ট

রোজা শুরুর পর থেকে ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে খাবারে ভেজালবিরোধী অভিযান চালাচ্ছে সরকারের বিভিন্ন সংস্থা। গত রোববার পচা-বাসি খাবার রাখা ও পরিবেশনের অপরাধে ফার্মগেট এলাকার চার রেস্তোরাঁকে জরিমানা করেছে ঢাকা মহানগর পুলিশের ভ্রাম্যমাণ আদালত।

রাজধানীর কদমতলী এলাকায় বিভিন্ন অপরাধে একটি খাদ্যপণ্য তৈরির কারখানাকে ২২ লাখ টাকা জরিমানা করেছে বাংলাদেশ নিরাপদ খাদ্য কর্তৃপক্ষের ভ্রাম্যমাণ আদালত।

তবে চার ঘণ্টা সেখানে অপেক্ষার পরও মালিকপক্ষের সাড়া না পেয়ে কারখানা সিলগালা করেই ফিরতে হয়েছে তাদের।

বৃহস্পতিবার রাজধানীর কদমতলী থানায় অবস্থিত আমিন ফুড প্রসেসিং ফ্যাক্টরিতে অভিযান চালায় ভ্রাম্যমাণ আদালত। সেখানে নোংরা ও অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে তৈরি হচ্ছিল সেমাই, ক্ষতিকর রাসায়নিক দিয়ে তৈরি হচ্ছিল খাবারের জেলি, ললিপপ লজেন্সসহ বিভিন্ন শিশুখাদ্য।

ভ্রাম্যমাণ আদালতের বিচারক তুষার আহমেদ বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, প্রতিষ্ঠানটির গুদামে প্রচুর পরিমাণে ভেজাল, অস্বাস্থ্যকর ও অনুমোদনবিহীন পণ্য পাওয়া গেছে। তারা বিএসটিআইয়ের লোগো ব্যবহার করলেও তাদের ছিল না কোনো লাইসেন্স। এসব অপরাধে নিরাপদ খাদ্য আইনের ২৩, ৩২, ৩৩ ও ৩৯ ধারায় মোট ২২ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়েছিল। কিন্তু বিকাল ৪টা পর্যন্ত সেখানে অপেক্ষা করেও মালিকপক্ষের কারো সাড়া পাওয়া যায়নি।

পরে জরিমানার অর্থ আদায় না করেই ফিরে আসতে হয়েছে ভ্রাম্যমাণ আদালতকে।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে ম্যাজিস্ট্রেট তুষার বলেন, “আমরা কারখানা সিলগালা করার পাশাপাশি মালামাল জব্দ করেছি। নিরাপদ খাদ্য কর্তৃপক্ষের একজন পরিদর্শককে বাদী হয়ে ওই কারখানার বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করতে বলা হয়েছে। ওই কারখানার মালিকের বিরুদ্ধে জামিন অযোগ্য ধারায় মামলা করা হবে। “

আরো পড়ুন
  • 757
লোড হচ্ছে ···
আর নেই